Breaking News
Home / সম্পাদকীয় (page 4)

সম্পাদকীয়

মান্নান, মমতা, কাকেশ্বর ও লালবাতি, পড়ুন কিসসা কুর্সি কা

নীল রায়: মমতা-বিমানের সৌজন্যেই কি বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান! মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৌজন্যেই কি এখনও বিরোধী দলনেতার পদে বহাল রয়েছেন আব্দুল মান্নান! এমন প্রশ্ন ঘোরাফেরা করছে রাজনৈতিক মহলে। কংগ্রেসের অন্দরমহলেও আক্রমণের মুখে পড়েছেন মান্নান সাহেব। এমনকি বিরোধী দলনেতা রূপে তাঁর থেকে যাওয়ার যৌক্তিকতা নিয়েও প্রশ্ন …

আরও পড়ুন »

দিব্যেন্দু পালিত আচার-আচরণে ছিলেন পরিপাটি

  কমলেন্দু সরকার :  কাল রাত্রে ঝড় এসে ঢুকেছিল পরিচিত ঘরে।/ লোকেন ছিল না। তার জার্নালের পাতা কটি উড়ছে/ হাওয়ায়; দিব্যেন্দু কী জানতেন তাঁর কবিতার ঝড় নিজের ঘরে ঢুকেছে! তিনি কী জানতেন তাঁর লেখার পাতাগুলো উড়ছে হাওয়ায়! হয়তো বুঝতে পেরেছিলেন। কিংবা পারেননি। দিব্যেন্দু অর্থাৎ দিব্যেন্দু পালিত। তিনি বলছেন, একাকী, নিঃসঙ্গ, …

আরও পড়ুন »

মমতাকে ধর্ম নিরপেক্ষ মনে করছেন না রাহুল

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায় :  তৃণমূল কংগ্রেসকে ধর্ম নিরপেক্ষ রাজনৈতিক দল বলে মনে করছে না কংগ্রেস। সম্প্রতি ১২ তুঘলক রোডে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রর সঙ্গে তাঁর যে বৈঠক হয়েছে সেখানে এমন মনোভাবই প্রকাশ করেছেন জাতীয় কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গাঁধী। বৈঠকে রাহুল স্পষ্ট করে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গে ধর্ম নিরপেক্ষ শক্তি এখন বিপন্ন বলেই …

আরও পড়ুন »

মৃণাল সেনের সিগারেটে গাঁজা পুরে দিয়েছিলেন নাসিরুদ্দিন

 কমলেন্দু সরকার নাটকের নামটি স্মরণে নেই। অ্যাকাডেমির জল খাওয়ার জায়গার পাশেই দাঁড়িয়ে কথা বলছিলাম বিভাসদার সঙ্গে। বিভাসদা অর্থাৎ বিভাস চক্রবর্তী। নাটকের দশ মিনিটের বিরতি। অনেকেই প্রেক্ষাগৃহ থেকে বেরোতে শুরু করেছেন। উদ্দেশ্য চা-সিগারেট খাওয়া। কারওর কারওর হাত-পা ছাড়িয়ে নেওয়া। সেদিন বেশ ঠান্ডা পড়েছিল কলকাতায়। বিভাসদা বললেন, “দাও একটা সিগারেট খাই।” দু’জনে …

আরও পড়ুন »

সত্তরে যখন চলচ্চিত্রকাররা পালাচ্ছেন, মৃণাল করে দেখালেন কলকাতা ‘৭১

 অনিকেত চট্টোপাধ্যায় মৃণাল সেন ছিলেন একজন নাগরিক পরিচালক। কোনওরকম ভনিতা ছিল না ওঁর মধ্যে যে আমি গ্রামের গল্প বলব, রুরাল লাইফ নিয়ে ছবি করব ইত্যাদি। যেমন ছবি অন্য অনেকের ক্যামেরায় আমরা দেখেছি সেদিকে উনি হাঁটেননি। আসলে মানুষটি মনেপ্রাণে নাগরিক ছিলেন। সবচেয়ে বড় কথা, কোনওদিন জোর করে অন্য কিছু করার চেষ্টা …

আরও পড়ুন »

ধান্দাবাজ বঙ্গ চলচ্চিত্রের ‘মধ্যবিত্ত’ সঙ্গ ত্যাগ করলেন মৃণাল সেন

 কিশোর ঘোষ: ৯৫ বছর বয়স হয়েছিল। অর্থাৎ বয়সের ভারেই প্রয়াত হলেন মৃণাল সেন। কিন্তু খবরটা জানার পর কুটিল মন প্রশ্ন তুলল— ভদ্রলোক মারা গেলেন না ‘আমাদের’ সঙ্গ ত্যাগ করলেন! ‘আমাদের’ মানে? আমাদের মানে আমরা—‘মধ্যবিত্ত’ বাঙালি সংস্কৃতি। মধ্যবিত্ত না বলে নিম্নবিত্ত বললেও খুব ভুল বলা হয় না। না, তাই বলে কাউকে …

আরও পড়ুন »

পাছে লোকে কিছু বলে! আটকে আছেন অরুণাভ

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায় :  কবি বিনয় মজুমদার বলতেন, যে সকল কবিতার পংক্তি সহজে স্মরণে থাকে তাই নাকি সার্থক কবিতা। কবিতা নিয়ে নানা মুনির নানা মত থাকলেও এই গণিতবিদ কবির অনুধাবনটি বড় চমকপ্রদ। সত্যিই সার্থক কবিতায় এমন এমন পংক্তি উৎসারিত হয় যা প্রবাদে পরিণত হয়। রবীন্দ্রকাব্যের অসংখ্য উদাহরণ এক পাশে রেখে গত …

আরও পড়ুন »

মুকুলের অডিয়ো ফাঁস : শাপে বর চাণক্যের

  দেবক বন্দ্যোপাধ্যায়  কিছুদিন আগে মুকুল রায়ের তৃণমূল বিরোধী একটি বিবৃতির পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূলের একজন বড় নেতাকে ফোন করেছিলাম। মুকুলের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া চাই। শুনেছি এই নেতাকে নাকি খুব বেশি সাংবাদিক ফোন করে না। কারণ ইনি অল্পেই মেজাজ হারান। দপ করে জ্বলে ওঠেন। তবে আমার সঙ্গে অনেকদিনের যোগাযোগ, বহুদিনের সম্পর্ক। আমি জানি …

আরও পড়ুন »

সঞ্জু, সাংবাদমাধ্যম ও শুভ্রাংশু

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশেষ কলাম :    আপনি সঞ্জু দেখেছেন? যদি এখনও পর্যন্ত না দেখে থাকেন তাহলে দেখে নিন। সঞ্জয় দত্তের এই বায়োপিকে সঞ্জুবাবার জীবনের বিভিন্ন বাঁক ও উত্থান-পতনের সঙ্গে সংবাদ মাধ্যমের একটি বিশেষ দিক এমন ভাবে সামনে এসেছে যা এই সময় আপনার দেখা দরকার। অবশ্য যদি আপনি রাজনীতির শৌখিন হন …

আরও পড়ুন »

সহসা সক্রিয় মমতার প্রচার মহল, ব্যক্তি সোমেনকে কী ভয় পাচ্ছে শাসক !

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায়  :  সত্তরোর্ধ। তার ওপর অসুস্থ। কয়েকদিন আগে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তিনি কী এমন বললেন যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পেটোয়া মহল হঠাৎ তাঁকে নিয়ে পড়ল! এই ভাবনা এখন মাথা তুলেছে রাজ্য কংগ্রেসে। সুচারু রাজনীতিক সুব্রত মুখোপাধ্যায় সংবাদ মাধ্যম সম্পর্কে মজা করে একটা কথা বলেন। বিনা প্ররোচনায় কোনও …

আরও পড়ুন »

অভিষেকে অশনি সংকেত! মমতার কথায় তোলপাড়

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায়  :  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অতীত কী কালো ছায়া ফেলছে তাঁর বর্তমানে! বৃহস্পতিবার ইনডোর স্টেডিয়ামের সভায় যুব তৃণমূল কংগ্রেসকে ধমক দিয়েছেন মমতা। তাঁর এই বকুনি দেওয়ার পরই উপরিউক্ত সংশয়টি মাথা তুলেছে যুগপৎ কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেস মহলে। দুই দলের প্রবীনদেরই মনে পড়ছে যুব কংগ্রেসের সভানেত্রী থাকাকালীন কী কাণ্ডটাই না করতেন …

আরও পড়ুন »

মহেশতলা, মহেশ আর গফুরের গপ্পে মুকুল রায়

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিশেষ কলাম  : মহেশতলার উপ-নির্বাচনের কথা আলোচনা করার আগে একবার ছুঁয়ে নেওয়া যাক মহেশকে। মহেশ? কোন মহেশ? শুধুমাত্র মহেশের কথা বললে ধন্দে পড়ার সম্ভাবনা আছে। তবে মহেশের সঙ্গে গফুরের নামটা যোগ করলে আর কোনও ধোঁয়াশা থাকে না। বুঝতে বাকি থাকে না শরৎচন্দ্রের গল্পের মহেশের কথাই বলে হচ্ছে। ক্ষুধার্ত, …

আরও পড়ুন »

গোয়া- মেঘালয় নিয়ে ভুল বোঝাচ্ছে কংগ্রেস ও তৃণমূল

অচিন্ত্য বিশ্বাস কর্ণাটক নির্বাচনে ১০৪টি আসন পেয়ে একক সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হয়েছিল বিজেপি ।  ম্যাজিক নাম্বারের থেকে অদূরেই থমকে যায় বিজেপির জয়যাত্রা। আর সুযোগ বুঝে জোট করে সরকার গঠনের দাবি জানায় কংগ্রেস ও জেডি এস । এদিকে রাজ্যপাল ইয়েদুরাপ্পাকে সরকার গঠনের জন্য আমন্ত্রণ জানান আর এরফলেই দেশজুড়ে প্রতিক্রিয়া শুরু হয় । …

আরও পড়ুন »

বিপ্লবের ভাবনায় হাসির খোরাক থাকলেও, প্রাচীন ভারত খিল্লির বিষয় নয়

অচিন্ত্য বিশ্বাস (প্রাক্তন উপাচার্য) :   ‘মহাভারতের সময় ইন্টারনেট ছিল’- এই মন্তব্য করে সম্প্রতি এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। তাঁর এই ভাবনাকে সমর্থন জানান একদা পদার্থ বিজ্ঞানের অধ্যাপক এবং বর্তমানে ত্রিপুরার রাজ্যপাল তথাগত রায় । তবে এই নিয়ে সোশাল মিডিয়ায় উপহাসমূলক কার্টুন ও ব্যঙ্গচিত্র উপচে পড়ছে। তবে বিপ্লব কুমার …

আরও পড়ুন »

অসভ্য কোলাহলের প্রতিবাদে কথা বলে উঠুক সভ্য মানুষের কণ্ঠস্বর

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায় : জোর যার মুলুক তার কিংবা যো জিতা ওহি সিকন্দর। পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়ন পর্ব এক প্রকার শেষ হল। শাসক দল বুঝিয়ে দিয়েছে আর কিছু না হোক পেশী শক্তিতে তারাই এগিয়ে। তাদের এই বুঝিয়ে দেওয়ার মধ্যে বৃহত্তর কোনও পরাজয় লুকিয়ে আছে বলে অনেকে মন্তব্য করেন। তবে এ হেন ‘বৃহত্তর’ …

আরও পড়ুন »

মুকুলকে অপমান করে মমতাকেই অসম্মান করছেন পার্থ-গৌরীরা, মত টিএমসির একাংশের

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায়ঃ কথায় বলে রতনে রতন চেনে! তৃণমূল কংগ্রেসে মমতার নবরত্ন ছাড়াও রাজ্য জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে বিবিধ রতন! তৃণমূল কংগ্রেসকে বিশ্লেষণ করতে চাইলে বিভিন্ন ভাবে করা যায়। একটি বিশ্লেষণে বর্তমান তৃণমূল দুটি ভাগে বিভক্ত, সৎ ও অসৎ। আবার এভাবেও বলা যায় যে তৃণমূলের দুটি ভাগ, আদি-নব্য কিংবা সবুজ পাঞ্জাবি-নীল পাঞ্জাবি …

আরও পড়ুন »
error: Content is protected !!