মেয়েটি

মধুমন্তী                  :

সে হয়তো পার্ক স্ট্রিট বা কামদুনি
সে হয়তো খরজুনা বা দিল্লি
সে হয়তো বারাসত বা রানাঘাট
সে ছড়িয়ে রাজপথ থেকে অলিগলি।

সে রয়েছে নতুন সূর্যোদয়ে
সে রয়েছে পাখির কাকলিতে
কিন্তু পিষে সমাজ নাগপাশে
সে বন্দি তার লোহায় গড়া দেশে।

সে চলতো সাহস বুকে নিয়ে
চোখে রঙিন স্বপ্ন ছিল আঁকা
শয়তানগুলো গ্রাস করল তাকে
সে আজ সাদা কাপড়ে ঢাকা।

একদিন সে পাশে চেয়েছিল পৃথিবী
কিন্তু সেদিন শূন্য ছিল নীড়
আজ যখন সে মিলিয়ে গেল ধোঁয়ায়
ঢল নেমেছে, মেলার মতো ভিড়।

কি ছিল দোষ তার কি ছিল গুণ
তাতে কার কিই-বা এল গেল
আমরা ভাবলেশহীন, নীরব দর্শক
মেয়েটি শুধু নিজের মতো বাঁচতে চেয়েছিল।

 

Spread the love

Check Also

রবিবারের কবিতা, কিশোর ঘোষ

 কিশোর ঘোষ চলুন বেড়িয়ে আসি ছুটি কি শালুকফুলের মূল? পিংলার পলিউশনহীন তারা? রাতের মতোন দিন …

রবিবারের কবিতা, কমলেশ পাল

কমলেশ পাল করবীকে দেখো করবী সকল পাতা হলুদ বানিয়ে বসে আছে। আমি যে কালকে ওকে …

‘অফুরান গোলাপ নিয়ে চুলের ফিতে বুনছি’, ৩টি কবিতা, মৌমিতা পাল

 মৌমিতা পাল: মওকা বুঝে এসেণ্সবুড়ি ফুটপাথে ঘুমোক ভালোবাসা নিপাত যাক দৃশ্যত কামাতুর রাতে দূরত্বে প্রেম …

One comment

  1. TANUMAY CHAKRABORTY

    Khub sundo o bastobik lekha, pora vhalo laglo…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *