Breaking News
Home / TRENDING / ইন্দিরা হলে আজ মোদির বক্তৃতা শুনতেন, সনিয়াকে খোলা চিঠি

ইন্দিরা হলে আজ মোদির বক্তৃতা শুনতেন, সনিয়াকে খোলা চিঠি

মাননীয় সোনিয়া গাঁধী

আপনি কি শুক্রবার সকালে নরেন্দ্রমোদীর বক্তৃতাটা শুনেছেন ? শুনতে পারতেন। আমি নিশ্চিত ইন্দিরা গাঁধী হলে শুনতেন। তাঁর রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্ধী কীভাবে এতবড় সংকট সামলাচ্ছেন তা অনুধাবন করার চেষ্টা করতেন। আমাদের ৭২ বছরের রাজনৈতিক ইতিহাসে একমাত্র উনিই এই কঠিন পরিস্থিতি সামলেছেন। যদিও একথা বলা বাহুল্য যে করোনা গত একশো বছরের সব সংকটকে ছাড়িয়ে গিয়েছে। এবং সেই সঙ্কটের সময় একটা একশো তিরিশ কোটি মানুষের দেশকে কীভাবে নিয়ে চলতে হয় কিভাবে মানুষের ভুলকে শুধরে দিতে হয় আবার তাঁদের উজ্জীবিতও রাখতে হয় সেটা হয়ত আপনি ছেলেকে শিখিয়ে বলতেও পারতেন। যদি অবশ্য আপনার ছেলে রাজনীতিটাকে একটু সিরিয়াসলি নিতেন। যদি তিনি মানে মাননীয় রাহুল গাঁধী বুঝতেন রাজনীতি মানে শুধু শুধু সংসদে দাঁড়িয়ে চোখ মারা নয়।

মাননীয়া সোনিয়া গাঁধী ব্যক্তিগতভাবে আমি আপনাকে খুব শ্রদ্ধা করি। সীতারাম কেশরী যে দলটার গঙ্গাযাত্রা নিশ্চিত করে দিয়েছিলেন আপনি সেই দলটাকে পুনরজ্জীবিত করেছিলেন। অসম্ভব সব জোট গড়ে ২০০৪ সালে কংগ্রেসকে ক্ষমতায় ফিরিয়েছিলেন এবং মনমোহন সিং কে সামনে রেখে দশ বছর দেশ চালিয়েছিলেন। ংগ্রেসের ইতিহাসে আপনার নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। কিন্তু গতকাল কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকের পরে আপনার আপনার বিবৃতিটা দেখে বুঝেছিলাম আপনি জানেন রাজনীতির ময়দানে কংগ্রেস তটা পিছিয়ে আছে। আপনার দলের এবং অনেকাংশে আপনার পরইবারের ধামাধরা সাংবাদমাধ্যগুলো পর্যন্ত যখন লিখতে শুরু করেছে, বিশেষজ্ঞদের লেখা ছাপছে যে ভারত করোনা মোকাবিলায় ঠিকপথে হাঁটছে আর টেস্টিং বাড়ানোর দরকার নেই তখন আপনি টেস্টিং কম হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলবেন ? এত খারাপ তথ্যগত ব্যাক আপআপনার কাছ থেকে সত্যিই আশা করিনি সোনিয়া জি। কপিল সিব্বাল বা চিদাম্বরমরা তো আপনাকে বলে দেবেন ভারতে করোনার প্রথম সংক্রমণের পর কতদিন কেটে গিয়েছে এখন কে সংক্ামিত আর কে সংক্রামিত হতে পারেন সেটা বিচার করা জরুরি নয়। আর একটা কথা ভাল করে বুঝুন,যে সংক্রামিত তাঁর চিকিৎসা করাটা বেশি জরুরি। হু এবং বিশেষজ্ঞরাও যেটা বলছেন সেটা কি করে আপনার চোখ এড়িয়ে গেল ? ভারতে প্রথম সংক্রমণের পর ৪৫ দিন কেটে গিয়েছে সরকার যদি টেস্ট নাও করে কেউ যদি অসুস্থ বোধ করে সে হাসপাতালে যাবে না ? করোনা নিয়ে এত প্রচারের পরও যাবে না। একমাত্র তবলীগ-ই-জামাতের অনুরাগী না হলে কিন্তু যাবে।

শুক্রবার সকালে নরেন্দ্র মোদী কিন্তু এই সব প্রসঙ্গে ঢুকলেনই না। তিনি গেলেন না কম টেস্টিং এর বস্তাপচা ক্যানেস্তারা বাজানোয় না তবলিগ-ই-জামাতের অপরিণামদর্শিতায়। তিনি শুধু জাতির মরাল স্পরিটটাকে ওপরে রাখার চেষ্টা করলেন। সেই জন্যই তো আগামী রবিবার রাত নটায় আলোকবর্তিকা জ্বালানোর ডাক। আপনার বামপন্থী বন্ধু সীতারাম ইয়েচুরিরা যেটাকে নাটক বলবেন, বলবেন-ই আপনিও সেই পথে হাঁটলেন। আর এর ফলে সাধারণ মানুষের আবেগ থেকে ছিটকে গেলেন।

নরেন্দ্র মোদী কিন্তু দেখুন জানেন ঠিক কতটুকু বলতে হবে আর কতটুকু বলবেন না। মোদী কি জা্নেন না যে লকডাউনের ঠিক অর্ধেকে পৌঁছে তিনি ভারতকে তিনি কোথায় রাখতে পেরেছেন ? আমেরিকায় যখন মৃত্যুমিছিল ব্রিটেন বা স্পেনে যখন শয়ে শয়ে লোক মারা যাচ্ছেন তখন ভারত কি পেরেছে আর কি পারেনি ? জানেন। স্কোরবোর্ড দেখে নিয়েও মহেন্দ্র সিং ধোনি যেমন কুল থাকতেন তেমনি দেশ কোথায় আছে এখন জেনেই প্রধানমন্ত্রী লকডাউনের শেষ সপ্তাহে ঢোকার আগে ভোকাল টনিক-এ গেলেন।

সনিয়া জী প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সি বেঁচে থাকলে হয়তো আপনার কানে কানে বলতেন নরেন্দ্র মোদীর বক্তৃতা আসলে ভোকাল টনিক। অপছন্দ হতে পারে কিন্তু ম্যাচ বের করে নেওয়ার জন্য অব্যর্থ। প্রিয়রঞ্জন জানতেন এক বাঙালি কোচ কত ম্যাচ এমন ভোকাল টনিকের ওপর জিতে গিয়েছেন। বামপন্থীদের হাড়ে হাড়ে চেনা প্রিয় হয়ত আপনাকে সতর্ক করতেন তাত্ত্বিক বিশ্লেষণের চাইতে একশো তিরিশ কোটির দেশে ভোকাল টনিক বেশি খায়।
কি করবেন বলুন আপনার বা রাহুর গাঁধীর এখন সুপরামর্শদাতার বেশি দরকার।
ওহ সনিয়াজি আপনাকে জিজ্ঞেস করা হয়নি ইতালিতে আপনার সব আত্মীয়রা ভাল আছেন তো ? যা মৃত্যুমিছিল ইতালিতে। আর ভক্ত হিসাবে আপনার কাছে অনুরোধ রইল রাহুর জী যেন দিদি্মাকে দেখতে এই সময় ইতালিতে না যান। আসলে ইতালির স্বাস্থ্য পরিষেবা একদম এখন একদম ভেঙে গিয়েছে।

ইতি
সুমন ভট্টাচার্য

Spread the love

Check Also

১৫ দিনে তিনবার পুলিশে বিদ্রোহ কলকাতায় ! টুইটে রাজ্যকে ভৎসনা রাজ্যপালের

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো: রাজ্যে ক্রমেই বেড়ে চলেছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে সামনের সারি …

লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধি হল ৩০ জুন পর্যন্ত

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো। ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হল লকডাউনের মেয়াদ। শনিবার সন্ধ্যায় এক নির্দেশিকায় এমনটাই …

করোনা কি তা রাহুল ঠিক বোঝেন না : কটাক্ষ নাড্ডার কটাক্ষ নাডডার

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো। করোনা কি তা ঠিক রাহুল গাঁধী বোঝেন না। এভাবেই প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতিকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!