Home / TRENDING / সুলতানকে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে দিয়েছেন মমতা, অধীরের মন্তব্যে ঝড়

সুলতানকে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে দিয়েছেন মমতা, অধীরের মন্তব্যে ঝড়

মধুকল্পিতা চৌধুরী

সুলতান আহমেদের মৃত্যু নিয়ে চাপান উতোর বেড়েই চলেছে রাজনৈতিক মহলে। প্রথমে বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর এবারে সুলতানের মৃত্যু নিয়ে সরাসরি তৃণমূলের দিকে আঙুল তুললেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

‘দুর্নীতির দায় কি দিদি ঝেড়ে ফেলতে চাইলেন!’ সুলতানের মৃত্যু প্রসঙ্গে অধীর বাবুর এই মন্তব্যের পর মৃত্যু রহস্য আরও জোরালো হল বলে মনে করেছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ। সুলতান আহমেদের মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখ জনক হলেও দিদি যেভাবে তাঁর মৃত্যুর ভার সিবিআইয়ের ওপরে চাপালেন তাতে খানিকটা অবাকই হলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। গত ঈদের নামাজে দিদির পাশে কেন সুলতান আহমেদকে বসতে দেওয়া হল না? এমনও প্রশ্ন তোলেন অধীর বাবু।

এমনকি সংখ্যালঘু চেয়ারম্যানের পদ থেকেও সুলতান আহমেদকে বসিয়ে দেওয়া নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। এইভাবে বসিয়ে দেওয়া যে সুলতানের কাছে কতটা অপমানজনক সে বিষয়ও মনে করিয়ে দিলেন অধীর বাবু।

সুলতান আহমেদকে মানসিকভাবে ভেঙে দেওয়ার জন্য সরাসরি দিদির দিকেই আঙুল তুললেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। তাঁর দাবি, সুলতান আহমেদকে বিধ্বস্ত করেছিল দিদির এই এড়িয়ে যাওয়া মনোভাবগুলো।

দিদি তাঁর দলের লোকেদের বুস্টার হিসেবে ব্যবহার করে চলেছে বলেও অভিযোগ করেন অধীর বাবু। উপগ্রহ আকাশে উড়লে বুস্টার কিছুটা সময় সাহায্য করে উপরে উঠতে, তারপর তার আর কোনও মূল্য থাকে না। দিদিও ঠিক একই ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। দলের লোকেদের বুস্টার হিসেবেই ব্যবহার করছেন তিনি। কাজ হয়ে গেলেই গল্প শেষ। উদাহরণ হিসেবে তিনি তাপস পাল, মুকুল রায়ের প্রসঙ্গ টেনে আনেন।

তবে, যদি অধীর বাবুর এই বুস্টার  তালিকার দিকে তাকানো যায় তাহলে একটা বিষয় পরিস্কার হয়ে যায় যে, সত্যি দিদি হয়তো আর তাঁদের ততটাও গুরুত্ব দেননা। একটা সময় ছিল যখন দিদির খুব ঘনিষ্ট ছিলেন তাপস পাল। কিন্তু তাপস পাল গ্রেফতার হওয়ার পর একবারও কি দিদি তাঁকে দেখতে গিয়েছে? অথচ ঠিক ওই সময়ই দিদি দেখতে গিয়েছিলেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। সূত্রের খবর, দেখতে যাওয়া তো দূরের কথা একবারও তিনি তাপস পালের খোঁজও নেননি। এবিষয়ে আগেও বহুবার প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। আর অধীর বাবুর মন্তব্যের পর তা আরও একবার জোরালো হয়ে উঠল। একদিকে যেমন সুলতান আহমেদের মৃত্যু নিয়ে ধোঁয়াশা আরও জোরালো হল ঠিক তেমনি অপরদিকে একটা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বিভিন্ন মহলে, সত্যি কি দুর্নীতি ঝেড়ে ফলতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়!! সেই বুঝেই তো অধীর বাবু বলেছেন, ‘‘কাজের সময় কাজি। আর কাজ ফুরোলেই পাজি !!!’’

বিভিন্ন বিষয়ে ভিডিয়ো পেতে চ্যানেল হিন্দুস্তানের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

https://www.youtube.com/channelhindustan

https://www.facebook.com/channelhindustan

Spread the love

Check Also

কেমন হলো, মুখ্যমন্ত্রীর এপিসোডের প্রথম ঝলক ?

সুচরিতা সেন, বিনোদন ডেস্ক রোজ বিকেলে বাংলার প্রতিটি ঘরে বিনোদন শুরু হয় এই শো এর …

বছর শুরুতে শিব দরবারে মিমি

চ্যানেল হিন্দুস্তান, বিনোদন ডেক্স বর্তমানে বেনারস ভ্রমণে ব্যস্ত টলিউড নায়িকা। সেখানকার অলি-গলিতে ঘুরছেন। সদ্য ওটিটি …

রশিদ খানের ফিরে দেখা জীবনধ্যায়

বিনোদন ডেস্ক, সুচরিতা সেন, আবার নক্ষত্রপতন, না ফেরার দেশে চলে গেলেন ওস্তাদ রশিদ খান। গানের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *