Home / TRENDING / স্ত্রীর নাক কাটার শাস্তি হোক ফাঁসি, বললেন ত্বহা সিদ্দিকি

স্ত্রীর নাক কাটার শাস্তি হোক ফাঁসি, বললেন ত্বহা সিদ্দিকি

নীল বণিক ও মধুকল্পিতা চৌধুরী

স্ত্রীর নাক কাটার শাস্তি, ফাঁসিতে ঝোলানো হোক অভিযুক্ত স্বামীকে। মালদার কালিয়াচকের ঘটনার পর এমনই প্রতিক্রিয়া পিরজ্বাদা তোহা সিদ্দিকির।

তিন তালাক দেওয়ার পরও বাড়ি থেকে বের না হওয়ায় স্ত্রীর নাক কেটে দেওয়ার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে। মালদার কালিয়াচকের এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত অভিযুক্ত হাসু শেখ সহ ৬জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে, এধরণের ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই নিন্দা মুখর নানা মহল। এ বিষয়ে আমরা যোগাযোগ করেছিলাম পিরজ্বাদা তোহা সিদ্দিকির সঙ্গে। চ্যানেল হিন্দুস্থানকে তি‌নি জানান, ‘‘শরিয়তের নিয়মে তিন তালাক বৈধ। ইসলাম ধর্মের কোথাও বলা নেই যে তিন তালাকের এইভাবে অপব্যবহার করা হোক। এইভাবে মহিলার নাক কেটে দেওয়াটা মেনে নেওয়া যায় না। এই ঘটনার জন্য তাঁর কঠোর শাস্তি হওয়া উচৎ। দেশের আইনকে সম্মান দিতে হবে, দেশের আইন অনুযায়ী অভিযুক্তের যে শাস্তি হওয়া উচিৎ তা অবশ্যই দিতে হবে। এই ধরণের অন্যায় যে ধর্মেরই মানুষই করুক না কেন তার ফাঁসি হওয়া উচিৎ।’’

তোহা সিদ্দিকির বক্তব্যে একটা জিনিস পরিস্কার যে, এই ধরণের ঘটনার শাস্তি হতে পারে একমাত্র ফাঁসি। অভিযুক্ত ব্যক্তি যে ধর্মেরই হোক না কেন এই জঘন্য অপরাধের শাস্তি হতে পারে একমাত্র ফাঁসিই।

মহিলারা প্রতিনিয়তই অত্যাচারের স্বীকার হচ্ছেন। বিভিন্ন কারণে তাদের নানা ভাবে হেনস্থা করা হচ্ছে। তবে। মালদার এই ঘটনা স্তম্ভিত সকলেই। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বচসা হতেই পারে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে সেই বচসা বিচ্ছেদ পর্যন্ত গড়িয়ে পড়ে। তবে, তিন তালাক প্রথা অনেক মহিলারাই মানতে নারাজ। ঠিক একই ভাবে তিন তালাক মানতে রাজি হননি মেনো বিবি। সেই না মানার পরিণাম যে এই পর্যন্ত গড়াতে পারে তা মানতে পারেনি মেনো বিবি। আর সেই কারণেই অভিযুক্তের কড়া শাস্তি চাইছে তোহা সিদ্দিকি থেকে শুরু করে সকলেই।

অপরদিকে, বিজেপির রাজ্য সভাপতি আবার এবিষয়ে সংখ্যালঘু মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়েই প্রশ্ন তুললেন। তিনি জানান, ‘‘সংখ্যালঘু মহিলারা যখন প্রতিনিয়ত ঘরের ভেতরে নির্যাতনের স্বীকার হচ্ছেন, সেই সময় মুখ্যমন্ত্রীর চোখের জল পড়ে না। তাদের নিয়ে উনি কিছু ভাবেন না। তিনি তিন তালাকের বিরোধিতা করেছেন। আদতে তিনি এরাজ্যটাকে উগ্র মৌলবাদীদের হাতেই দিতে চান। এইভাবেই তিনি নিজের চেয়ারকে সুরক্ষিত রাখতে চান।’’

এধরণের ঘটনায় ফাঁসির দাবি করলেন তোহা সিদ্দিকি। অপরদিকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি আবার সংখ্যালঘু মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়েই প্রশ্ন তুললেন। তবে, শেষ পর্যন্ত অভিযুক্ত হাসু শেখের কি শাস্তি হয় এখন সে দিকেই তাকিয়ে বিভিন্ন মহল।

বিভিন্ন বিষয়ে ভিডিয়ো পেতে চ্যানেল হিন্দুস্তানের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

https://www.youtube.com/channelhindustan

https://www.facebook.com/channelhindustan

Spread the love

Check Also

আপনারা সরকারের মুখ বলে আধিকারিক দের বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর।

চ্যানেল হিন্দুস্থান ডেস্ক: রাজ্যের আমলাদের উজাড় করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার প্রথমে নতুন করে সংস্কার হওয়া …

WBCS দের সভা থেকে কেন্দ্রকে তীব্র আক্রমণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

চ্যানেল হিন্দুস্থান ডেস্ক: WBCS দের সঙ্গে বৈঠক, আর সেখান থেকেই করা বার্তা রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের। …

বন্ধ ব্যান্ডেল জংশন

চ্যানেল হিন্দুস্থান ডেস্কঃ রুট রিলে ইন্টারলকিং কেবিন স্থানান্তর ও থার্ড লাইন সম্প্রসারণের জন্য হাওড়া-বর্ধমান মেইন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *