Home / TRENDING / ভালবাসুন, ভাল রাখুন

ভালবাসুন, ভাল রাখুন

নন্দিনী চৌধুরী ব্রহ্মচারী     :-

ভোর বেলা পাখির ডাকে ঘুম ভাঙে। শোয়ার ঘরের জানলা দিয়ে ভোরের আলো-আঁধারি মিষ্টি হাওয়া সুখের আবেশ নিয়ে আসে। প্রাতঃভ্রমণ, যোগাসন, প্রতিবেশীদের সহাস্য সম্ভাষণ সেরে সবুজ চায়ে চুমুক দিয়ে মনে হয় এই বেশ ভাল আছি।

পুরনো অভ্যাস মতো খবরের কাগজ খুলতেই ঝাঁপিয়ে পড়ে দুঃসংবাদের  প্লাবন। স্বদেশে- বিদেশে ঘরের পাশে ঘটে যাওয়া মর্মান্তিক সব ঘটনা।

হিংসা দ্বেষ অত্যাচার অবিচারের ঘটনা ভোর বেলার ভাললাগার নিষ্কলুষ অনুরণনকে একধাক্কায় চুরমার করে দিল। এ বড় যন্ত্রণা। গ্রিক দার্শনিক সফক্লেস বলেছিলেন, ভালবাসা এমন এক শব্দ  যা আমাদের সব চাপ (stress) যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দেয়। ভালবাসাহীন জীবন কি তাহলে আমাদের সব চাপেরই উৎস?

২রা মে সেন্ট টমাস চার্চে সনিকা সিমোন সিং চৌহান (সোনু)-এর স্মরণ সভায় সাদা ফুলের পবিত্রতার মাঝে বসে আরেকটি পবিত্র মুখের কথা খুব মনে পড়ছিল—–আবেশ।              আবেশ আর সনিকা দু’জন ভিন্ন বৃত্তের মানুষ। হত্যা, অপঘাত, হঠকারিতা, দুর্ঘটনা এঁদের মৃত্যু নিয়ে বিতর্ক যাই-ই থাক না কেন, কিছু ক্ষেত্রে ভীষণ মিল। পরিবারের একমাত্র সন্তান এরা। জীবনের শেষ কয়েক ঘণ্টা আনন্দে থাকতে চেয়েছিল বন্ধুদের সঙ্গে। আর জীবন মরণের সীমানা ছাড়িয়ে বন্ধুত্বের মাঝখানে ফণা মেলে দাঁড়িয়ে ছিল রঙিন নেশা।

ভাল থাকার অনুপান হিসেবে নেশা আমাদের সমাজের এক স্বীকৃত উপাদান হয়ে দাঁড়িয়েছে। নেশা না করাটা যেন সেকেলে গ্রাম্যতার পরিচয়।

আনন্দ উৎসারিত হয় অন্তর থেকে। আনন্দ বা fun উদ্দাম নেশার মধ্যে খুঁজতে গেলে জীবনের গোলকধাঁধায় হারিয়ে যাবার সম্ভাবনা বেশি।

শীতের রাতে বন্ধুকে  উষ্ণতা দেবার জন্য যেমন নিজের শরীরে আগুন লাগাবার প্রয়োজন নেই তেমনি বন্ধুদের আনন্দ দেবার জন্য নেশা করার দরকার নেই।

নেশা করতে হলে জানতে হবে নিজ কর্তব্য এবং অ-কর্তব্য (do’s and don’t s)   সনিকা আর আবেশ আমাদের মধ্যে আজ আর নেই। কিন্তু আমার চেম্বারে প্রতিদিন আমি এমন অনেক তরুণ মুখ দেখি যাঁরা সর্বস্বান্ত বা বিকলাঙ্গ হয়েছেন বন্ধুত্ব এবং নেশা র জালফাঁসে।

ভাল থাকার জন্য জীবনে সবচেয়ে বড় প্রয়োজন ভালোবাসার।

রবার্ট ব্রাউনিং বলেছেন ভালবাসাবিহীন পৃথিবী কবরস্থানের নামান্তর মাত্র। আমরা নিয়ত কবর স্থান তৈরি করে চলছি না তো?         ভালবাসা পূর্ণ একটি হৃদয় হলো প্রকৃত জ্ঞানের প্রতীক।

সংসারে সমাজে ভালবাসার ভাল থাকার বৃত্ত সৃষ্টি করা আমাদের প্রত্যেকের কর্তব্য। ক্ষমতার ইঁদুরদৌড়, মানসিক চাপ, থেকে দূরে থাকুন, দূরে রাখুন স্বজনকে। ভাল থাকুন সবাই।

 

(লেখিকা  স্বদেশে এবং বিদেশে stress management consultant. আরও জানতে হলে লগ অন করুন www.nandinichoudhury.com )

 

Spread the love

Check Also

আপনারা সরকারের মুখ বলে আধিকারিক দের বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর।

চ্যানেল হিন্দুস্থান ডেস্ক: রাজ্যের আমলাদের উজাড় করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার প্রথমে নতুন করে সংস্কার হওয়া …

WBCS দের সভা থেকে কেন্দ্রকে তীব্র আক্রমণ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

চ্যানেল হিন্দুস্থান ডেস্ক: WBCS দের সঙ্গে বৈঠক, আর সেখান থেকেই করা বার্তা রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধানের। …

বন্ধ ব্যান্ডেল জংশন

চ্যানেল হিন্দুস্থান ডেস্কঃ রুট রিলে ইন্টারলকিং কেবিন স্থানান্তর ও থার্ড লাইন সম্প্রসারণের জন্য হাওড়া-বর্ধমান মেইন …

One comment

  1. Khub positive akta lekha ,pore khub bhalo laglo

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *