Breaking News
Home / TRENDING / শারদোৎসবের আবহেই জোড়া খুন ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে

শারদোৎসবের আবহেই জোড়া খুন ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে

নীল রায়।

ক্রমেই কী বধ্যভূমি হয়ে উঠছে ব্যারাকপুর (Barackpur) শিল্পাঞ্চল? শারদোৎসবের আবহেই দুজন খুন হয়ে গেলেন ওই এলাকায়। বুধবার রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ গুলিবিদ্ধ হয়ে খুন হলেন বছর পঞ্চাশের অমরনাথ তেওয়ারি। এদিন রাতের খাওয়া সেরে হাজিনগরের বাসন্তীতলায় নিজের বাড়িতে বসেছিলেন তিনি। তাঁর ছেলে আশু তেওয়ারি ছিলেন ঘরেই। আচমকাই কয়েকজন দুষ্কৃতী আশুর নাম ধরে ডাকতে ডাকতে ঘরে প্রবেশ করে। আশুকে মারধর শুরু করলে বাধা দেন তাঁর বাবা। তাঁকে লক্ষ্য করে গুলিও চালায় দুষ্কৃতীরা। জানা গিয়েছে, আশুকে বাঁচাতে এগিয়ে যান অমরনাথ। সেই সময়ই দুষ্কৃতীদের গুলিতে আহত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায় ওই দুষ্কৃতীরা।

গুলির শব্দ ও চিৎকার শুনে ছুটে আসে প্রতিবেশীরা। তাঁরাই রক্তাক্ত অমরনাথ তেওয়ারিকে নৈহাটি স্টেট জেনারেল হাসপাতালে (Naihati State General Hospital) নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। দ্রুত ঘটনাস্থলে আসে ব্যারাকপুর কমিশনারের পুলিশ। নিহত অমরনাথ তেওয়ারির পুত্র আশুকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। কি কারনে তাঁর ওপর আক্রোশ মেটাতে এসেছিল দুষ্কৃতীরা তা জানতে চাইছে পুলিশ প্রশাসন। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ঘটনায় কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেট।

প্রসঙ্গত, দশমীর দিন গভীর রাতে কাঁচরাপাড়া এলাকায় খুন হয়েছিলেন একজন তৃণমূল কর্মী। নিহতের নাম রাজু কুরমী (৩৮)। লোকসভা ভোট পর্ব মিটে যাওয়ার পর থেকেই বিজেপি-তৃণমূল (BJP-TMC) সংঘর্ষের ঘটনায় সংবাদের শিরোনামে উঠে এসেছিল ব্যারাকপুর। রাজনৈতিক সংঘর্ষ এমন পরিস্থিতিতে পৌঁছেছিল যে মাথা ফেটে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়েছিল এলাকার বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংকে (Arjun Singh)। কিন্তু শারদোৎসবের মাঝেই যে এলাকায় জোড়া খুনের ঘটনা ঘটে যাবে তা আঁচ করতে পারেনি পুলিশ প্রশাসন। ব্যারাকপুরে স্থানীয় জনতা এমন ঘটনায় পুলিশ প্রশাসনের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে।

Spread the love

Check Also

ইঞ্জেকসন নিয়ে নার্সকে মনে হল স্বর্গের সুন্দরী! সলমন নয় বক্তা পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান

নিজস্ব প্রতিনিধি : ফের বিতর্কে জড়ালেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।মঙ্গলবার তিনি বলেন, পড়ে গিয়ে একবার …

দিল্লির রাজপথে ছবি এঁকে সিএএ-র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে চান মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (CAA) বিরুদ্ধে এবার ছবি আঁকার কর্মসূচী দিল্লিতে করার পরিকল্পনা তৃণমূলের। …

“ঐতিহাসিক ভুল সংশোধন করতেই সিএএ” ফের স্পষ্ট করলেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি। “ঐতিহাসিক ভুল সংশোধন করতেই সিএএ।” জানিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। মঙ্গলবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *