Home / TRENDING / নেহরু-এডুইনার প্রেমে যৌনতা ছিল না, মানসিক সম্পর্ক ছিল গভীর

নেহরু-এডুইনার প্রেমে যৌনতা ছিল না, মানসিক সম্পর্ক ছিল গভীর

কমলেন্দু সরকার  :

লেডি মাউন্টব্যাটেন এডুইনার সঙ্গে জওহরলাল নেহরুর যখন আলাপ-পরিচয় হয়, নেহরু তখন ৪৭। সেসব স্বাধীনতার আগে-পরের কথা। মাউন্টব্যাটেন আছেন সেখানে এডুইনাও আছেন, অন্য কেউও। সকলের সামনেই নেহরু প্রেমিকের মতো হাসি-ঠাট্টা ছলে হাসছেন এডুইনার দিকে চেয়ে। সে ছবি অনেকেই মুচকি হেসেছিলেন। সকলেই জানতেন নেহরু-এডুইনা প্রেমের কথা। দু’জনা দু’জনকে খুব পছন্দ করতেন, ভালবাসতেন। স্ত্রী এডুইনা যে নেহরুর প্রেমে হাবুডুবু কিংবা নেহরু এডুইনার! সে কথা জানতেন না ভারতের শেষ ভাইসরয় লর্ড লুইস মাউন্টব্যাটেন! জানতেন তিনি। নীরব সমর্থন ছিল তাঁর। মায়ের এই প্রেমের ব্যাপারস্যাপার সন্তানরাও জানতেন। মাউন্টব্যাটেন-এডুইনা কন্যা পামেলা হিকস তাঁর বইয়ে লিখেছেন ওঁদের দু’জনের সম্পর্কের কথা। মেধা, মানসিকতা, রুচি, দৃষ্টিভঙ্গিতে নেহরুর সঙ্গে এডুইনার বিস্তর মিল ছিল। যা ছিল না স্বামী মাউন্টব্যাটনের সঙ্গে। উচ্চশিক্ষিতা ধনী পরিবারের মেয়ে এডুইনার সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল মাউন্টব্যাটেনের। কিন্তু দু’জনের মধ্যে অমিল ছিল প্রচুর। শয্যাসঙ্গী হিসেবেও স্বামীকে পছন্দ ছিল না এডুইনার। সুন্দরী, রুচিশীলা, শিক্ষিতা এডুইনার ভক্তের সংখ্যা নেহাত কম ছিল না! তাঁর সঙ্গে কোনও কোনও পুরুষের সম্পর্কও গড়ে উঠেছিল।
কিন্তু নেহরুর সঙ্গে এডুইনার সম্পর্কটা ছিল একেবারে অন্য রকমের। দু’টি হৃদয় কাছাকাছি হলেও শরীরী সম্পর্ক গড়ে ওঠেনি কখনও। কিন্তু ফরাসি এক লেখিকার মত, নেহরু-এডুইনার প্রেম একেবারে নিষ্কাম ছিল না। এডুইনা-মাউন্টব্যাটেন কন্যা পামেলা বলছেন, নেহরু এবং লেডি মাউন্টব্যাটেন একসঙ্গে এত কাজ করতেন যে সবসময়ই লোকজন তাঁদের ঘিরে থাকত। দু’জনের একান্তে আলাদা হওয়ার সুযোগ ছিল না। ফলে, শারীরিক সম্পর্কও গড়ে ওঠার সুযোগও ঘটত না।
নেহরু খুব চিঠিবিলাসী ছিলেন। তিনি এডুইনাকে চিঠি দিতেন গোলাপের গন্ধমাখা নীল কাগজে। এডুইনাকে দেওয়া নেহরুর চিঠির সংখ্যা এক সুটকেস ভরতি! দু’জনের মধ্যে চিঠির আদানপ্রদান ছিল। এডুইনার চিঠিতে পাওয়া যায় নেহরুর প্রতি তাঁর দুর্বলতার ইঙ্গিত। এ কথা জানতেন পতিদেবতা মাউন্টব্যাটেন। আসলে নেহরুর মধ্যে এক যোগ্য সঙ্গীকে খুঁজে পেয়েছিলেন এডুইনা।
এডুইনা দেশে ফিরে যাওয়ার সময় নেহরুকে দিতে চেয়েছিলেন একটা পান্নার আংটি। কিন্তু সেটি নেহরু যে নেবেন না তা জানতেন এডুইনা। তাই সেটি নেহরু -কন্যা ইন্দিরাকে। তবে চোখের বাইরে চলে গেলেও এডুইনা-নেহরুর চিঠিতে যোগাযোগ ছিল। নেহরুর গোলাপ গন্ধসমেত নীল চিঠি পৌঁছলে একাকী তার ঘ্রাণ নিতেন এডুইনা!

লাইক শেয়ার ও মন্তব্য করুন

বিভিন্ন বিষয়ে ভিডিয়ো পেতে চ্যানেল হিন্দুস্তানের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

আরও পড়ুন :- 

মমতার মাথায় পরিবারতন্ত্রের ভুত! মুকুলকে খাচ্ছে কিন্তু গিলছে না দল

Spread the love

Check Also

গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড থেকে পডকাস্ট

চ্যানেল হিন্দুস্তান ডেস্ক, পডকাস্ট মানে আমরা মনে করি রেডিওর মাধ্যমে দুজন বা তার থেকে বেশি …

Last night, The Poor Theatre Company, in collaboration with Veda Factory staged a grand show Othello

Channel Hindustan Desk : Shakespeare, translated into Hindustani and directed by Tauqeer Alam Khan. A …

শিয়ালদহ মেন শাখায় বাতিল ১৪৩ লোকাল ট্রেন, ভোগান্তি বাড়বে নিত্যযাত্রীদের

চ্যানেল হিন্দুস্থান, নিউজ ডেস্ক: চলতি সপ্তাহে ফের ভোগান্তির বাড়বে নিত্য ট্রেনযাত্রীদের। রেল সূত্রের খবর, শিয়ালদহ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *