Breaking News
Home / TRENDING / গাঁধীজীর চার নম্বর বাঁদর

গাঁধীজীর চার নম্বর বাঁদর

মূল হিন্দি রচনা: শরদ জোশী

অনুবাদ: পার্থসারথি পাণ্ডা

কয়েকজন জবরদস্ত রিপোর্টার একদিন গাঁধীজীর আশ্রমে এলেন। তাঁদের সঙ্গে রয়েছেন জম্পেশ এক ফটোগ্রাফার। আশ্রমে ঢুকেই তাঁরা দেখতে পেলেন গাঁধীজীর তিন বাঁদরকে। পয়লা নম্বরের বাঁদর দু’হাতে তার দুই চোখ ঢেকে নির্বিকার বসে আছে, কারণ, সে পণ করেছে মন্দ কিছুই দেখবে না। দু’নম্বর বাঁদরও নিজের দুই কান চেপে নির্বিবাদে বসে আছে, তারও পণ যা কিছু মন্দ, তার কিছুই সে শুনবে না। আর তিন নম্বরের বাঁদরটি নিরাসক্তটি হয়ে দু’হাতে নিজের মুখ চেপে বসে আছে, তার পণ আরও মারাত্মক, সে এমন কিছুই বলবে না, যা লোকের মন্দ লাগে! তাই দেখে রিপোর্টারদের দেশাত্মবোধক মাথা, উর্বর স্টোরি পেয়ে গেল! সঙ্গের ফটোগ্রাফারেরা তিন বাঁদরের ছবি নানান পোজে পটাপট তুলে নিলেন। তারপর তাঁরা মহানন্দে আশ্রম থেকে চলে গেলেন।

রিপোর্টারদের দল চলে যেতেই সেখানে হন্তদন্ত হয়ে হাজির হল গাঁধীজীর চার নম্বর বাঁদর। পাশের গাঁয়ে সে ভাষণ দিতে গিয়েছিল। সে মন্দ দেখে, মন্দ শোনে এবং মন্দ বলেও। সে যখন জানতে পারল আশ্রমে রিপোর্টার-ফটোগ্রাফারেরা এসেছিল; তখন তার খুব রাগ হল। রাগে রি রি করে ছুটতে ছুটতে সে গাঁধীজীর সামনে এসে সটান জানতে চাইল–

‘এটা কি হল, বাপু! রিপোর্টার এলো, ছবি তুলে নিয়ে গেল; অথচ কেউ আমাকে একটা খবর পর্যন্ত দিল না! এ-অন্যায় আমি কিছুতেই সহ্য করবো না!’

চরকা চালাতে চালাতে মুচকি হেসে বাপু বললেন, ‘দেশটাকে একবার স্বাধীন হতে দে বাপ! তখন দেখবি শুধু তোরই খবর চাপা হচ্ছে, তোরই ছবি ছাপা হচ্ছে! বাঁদর তিনটের জীবনে এ সুযোগ তো এই একবারই এসেছে, তোর জীবনে দেখবি রোজ রোজ আসবে!’

সৌভাগ্য আমাদের, দেশে এখন সেই চার নম্বর বাঁদরের ছড়াছড়ি!

Spread the love

Check Also

বাংলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়াল, মোট মৃত ৯৫২ জন

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো। রোজই করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রমনের নতুন রেকর্ড গড়েছে পশ্চিমবাংলা (West Bengal)। রবিবার …

লকডাউনের পর ভক্ত সংখ্যায় নজির গড়ল তিরুমালা, ভেঙ্কটেশর দর্শনে এসেছেন ২.৫ লক্ষ তীর্থযাত্রী

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো: লকডাউন হওয়ার ৮০ দিন পর ১১ জুন খুলেছে তিরুপতি তিরুমালা ভেঙ্কটেশর মন্দির। …

বিহারে পুলিশি অত্যাচারের বিরুদ্ধে ধর্মঘট অব্যাহত থাকল অ্যাম্বুলেন্স কর্মীদের

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো: দু’দিন পরেও বিহারের সমস্তিপুরে ধর্মঘট অব্যাহত থাকল অ্যাম্বুলেন্স কর্মীদের। পুলিশি অত্যাচারের বিরুদ্ধে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!