Breaking News
Home / TRENDING / উভয় সঙ্কটে তৃণমূল ! অনাস্থার আগেই ভাটপাড়ায় চেয়ারম্যান পদের পাঁচ দাবিদার

উভয় সঙ্কটে তৃণমূল ! অনাস্থার আগেই ভাটপাড়ায় চেয়ারম্যান পদের পাঁচ দাবিদার

নীল রায়।

ব্যারাকপুরের বিজেপি (BJP) সাংসদ অর্জুন সিংকে জব্দ করতে গিয়ে মহা ফ্যাসাদে পড়েছে তৃণমূল। ভাটপাড়া পৌরসভার দখল নিতে ইতিমধ্যে অনাস্থা আনার বিষয়টি চূড়ান্ত করেছে তাঁরা। কিন্তু, বিকল্প পৌর বোর্ড গঠন করা নিয়ে মহা ফ্যাসাদে পড়েছেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, নির্মল ঘোষ, পার্থ ভৌমিকরা। লোকসভা ভোটের পর ভাটপাড়া পৌরসভা বিজেপি দখল করে নেওয়ার পর তৃণমূলের লক্ষ্য ছিল যেনতেন প্রকারেণ তা আবারও শাসক শিবিরে অনুকূলে তা ফিরিয়ে আনা। গত ছয়মাসে তাঁরা ধীর গতিতে গেরুয়া শিবিরে ভাঙন ধরাতে সক্ষম হলেও, বিকল্প পৌরসভা গঠন নিয়ে সমস্যায় তারা।

কারণ, বিজেপি শাসিত ভাটপাড়া পৌরসভার বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব আনার খবরেই চেয়ারম্যান পদের একাধিক দাবিদাররা সোচ্চার হয়েছে দলের অন্দরেই। চেয়ারম্যান পদের দাবিদার ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মদনমোহন ঘোষ, ১০ নম্বর ওয়ার্ডের মনোজ গুহ, ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডের দেবু সরকার। এরা প্রত্যেকেই নৈহাটির বিধায়ক পার্থ ভৌমিকের অনুগামী। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সাংসদ ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Abhishek Banerjee) অনুগামী পার্থ ভৌমিক। সেই সমীকরণে উত্তর ২৪ পরগনার রাজনীতিতে ক্রমেই শক্তিশালী হয়ে উঠেছেন তিনি। সূত্রের খবর, পার্থ ভৌমিক চাইছেন নতুন পৌর বোর্ডে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান হোক তাঁর অনুগামীরা।

জেলা তৃণমূল (TMC) সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের ঘনিষ্ঠ সত্যেন রায়ও চেয়ারম্যান হতে চাইছেন। তিনি ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকও সত্যেন রায়কেই চেয়ারম্যান পদে বসাতে চান। আবার অর্জুন সিং যখন ভাটপাড়া পৌরসভার হাতবদল করিয়েছিলেন তখন যারা তৃণমূলে থেকে গিয়েছিলেন তাঁরাও চেয়ারম্যান হওয়ার দৌড়ে। অর্জুন সিং ভাটপাড়া (Bhatpara) পৌরসভার চেয়ারম্যান থাকাকালীন সিআইসি (পূর্ত) ছিলেন মকসুদ আলম, যিনি ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর। প্রথমে পৌরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম তাঁকে চেয়ারম্যান করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু, একাধিক দাবিদার দেখে মতবদল করেছেন কলকাতার মেয়র। কিন্তু, মকসুদ এখনও নিজেকে চেয়ারম্যানের দৌড়ে বহাল রেখেছেন।

এছাড়াও, পুরোনো দিনের তৃণমূল নেতা তথা ২৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অরুণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর হিমাংশু সরকারের চেয়ারম্যান পদে বসার ইচ্ছের কথা দলকে জানিয়ে রেখেছেন। এহেন পরিস্থিতিতে দোটানায় তৃণমূল নেতৃত্ব। অর্জুন সিংকে (Arjun Singh) রুখতে আপাতত ভাটপাড়া সহ ব্যারাকপুরের আটটি পৌরসভাকে এক করে ব্যারাকপুর মিউনিসিপাল কর্পোরেশন তৈরি করার বিষয়ে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য প্রশাসন। কিন্তু ভাটপাড়া পৌরসভা পুনর্দখলের পর দলের পাঁচজন কাউন্সিলর চেয়ারম্যান পদের দাবিদার হয়ে উঠবেন তা মোটেই আঁচ করতে পারেননি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক-পার্থ ভৌমিকরা। এ প্রসঙ্গে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, “আগে অনাস্থা আনা হবে। তারপর অন্য কিছুর কথা ভাববে দল।”

সূত্রের খবর, এমতাবস্থায় তৃণমূল নেতৃত্ব সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নতুন বছরের ৪ জানুয়ারি অনাস্থা আনা হবে ভাটপাড়া পৌরসভায়। অনাস্থা প্রস্তাব পাশ হয়ে গেলে আপাতত কয়েক মাসের জন্য প্রশাসক বসানো হবে। কারণ আগামী এপ্রিল-মে মাসে রাজ্যের ১০৭টি পৌরসভার নির্বাচন। তাতে ভাটপাড়া পৌরসভাও রয়েছে। ফলে প্রশাসক বসিয়ে চেয়ারম্যান পদ নিয়ে দলের অভ্যন্তরীণ লড়াই যেমন থামানো যাবে। তেমনি বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের সঙ্গে লড়াই করার কিছুটা সময় পাওয়া যাবে। তাই দলীয় কোন্দল রুখতে আপাতত সরকারী প্রশাসকই ভরসা তৃণমূলের।

Spread the love

Check Also

‘নৃশংসতার কোনও সীমা নেই’ উন্নাওয়ের নির্যাতিতার মৃত্যুতে টুইট মুখ্যমন্ত্রীর

ওয়েব ডেস্ক: উন্নাওয়ের নির্যাতিতার করুণ পরিণতিতে টুইট করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার সকাল ১১.৫৫ নাগাদ …

উন্নাও কান্ডের প্রতিবাদে দিল্লিতে ৬ বছরের মেয়েকে জ্বালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা মা’য়ের

নিজস্ব সংবাদদাতা: গতকাল ভোরে হায়দরাবাদের পুলিশের এনকাউন্টারে মৃত্যু হয়েছে পশুচিকিৎসকের ধর্ষণ ও খুনে অভিযুক্তেরা, আর …

এবার এনকাউন্টার নিয়ে প্রশ্ন তুললেন অধীর

সূর্য সরকার । তেলেঙ্গানার তরুনীর ধর্ষণকাণ্ড তারপর তাকে পুড়িয়ে মারা। বিগত এক সপ্তাহ ধরে ঘটনায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *