Breaking News
Home / TRENDING / দিলীপ ঘোষ মানুষটা ভাল, জুড়ি মেলা ভার, কথা বললেই টিআরপি

দিলীপ ঘোষ মানুষটা ভাল, জুড়ি মেলা ভার, কথা বললেই টিআরপি

দেবক বন্দ্যোপাধ্যায়।

দিলীপ ঘোষ মানুষটা ভাল…
বক্তা এই শহরেরই একজন নামী আইনজীবীর। যিনি ঠোঁট কাটা রাজনৈতিক ভাষ্যের জন্য জনপ্রিয়।

যে ক্যাটাগরির মানুষ এখন রাজনীতিতে বেশি সক্রিয় তাদের জন্য দিলীপদার জুড়ি মেলা ভার…
বক্তা বিজেপির একজন অতি সাধারণ কর্মী। যাঁর একটা ছোটখাটো ব্যবসা আছে। নিজের এলাকায় সামান্য পরিচিতি ছাড়া যাঁকে আর কেউ চেনে না। চেনার কথাও নয়।

দিলীপদা কথা বললেই টিআরপি…
বক্তা একজন জুনিয়র রিপোর্টার।

দিলীপদার বিকল্প কোথায়…
বক্তা সঙ্ঘের এক কর্মী।

সঙ্ঘ মহিলাদের সম্মান করে। সম্মান প্রদর্শনের এই ঘোষণাও করে। দিলীপ ঘোষ কন্যাসমা যাদবপুরের ছাত্রীকে কু ইঙ্গিত করে বলেন, ওর বোধায় কোনও ব্যবসা আছে।
তবু দিলীপ ঘোষ ভালমানুষ, বর্তমান রাজনীতিতে ওঁর জুড়ি মেলা ভার, উনি কথা বললেই টিআরপি।
উনি অ্যম্বুলেন্স ঘুরিয়ে দেন। পরে খবরে প্রকাশ পায় ওই অ্যম্বুলেন্সে আসন্ন প্রসবা মহিলা ছিলেন। যে কোনও মুহুর্তে বড় কোনও বিপদ হতে পারত। হয় মায়ের নয় সন্তানের।
‘হয়নি তো।’
দিলীপ ঘোষ ভালমানুষ। ওঁর জুড়ি মেলা ভার। উনি কথা বললেই টিআরপি।

উত্তরপ্রদেশ বা অসমে আন্দোলনকারীদের যেভাবে কুকুরের মত গুলি করে মেরেছে…
দিলীপ বচনে বাবুলের প্রতিবাদ। দিলীপের পাল্টা ‘যা বলেছি ঠিক বলেছি। দলের লাইনে বলেছি।’
আন্দোলনকারীদের গুলি করে মারা দলের লাইন? উত্তরপ্রদেশে এমন কিছু হয়েছে? যোগী তা স্বীকার করেন? অমিত শাহ তা মেনে নেন? নৈরাজ্য সৃষ্টিকারীদের কঠোর হতে দমন আর কুকুরের মত গুলি করে মারা কি এক হল? মাছও যা মাছরাঙাও তাই?
কোনও প্রশ্ন নয়। নো কোশ্চেন। দিলীপ ঘোষ ভালমানুষ, ওঁর জুড়ি মেলা ভার। উনি কথা বললেই টিআরপি।

তাই দলের সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে সাংগঠনিক নির্বাচনের প্রাক্কালে উনি আত্মপ্রচার করবেন। বলবেন, ‘আমি কি করেছি তা কর্মীরা দেখেছেন। তারা সিদ্ধান্ত নেবেন।’

নিজের ‘গুলি করে মারা’ বক্তব্যের সাফাই গাইতে গিয়ে তিনি বলবেন, সিদ্ধার্থ রায়ের আমলে নকশালদের গুলি করে মারা ‘পাপ’। একদা নকশাল আজকের মাওবাদী সম্পর্কে তাঁর নিজের দল ও কেন্দ্রীয় সরকারের অবস্থান কি?
কোনও প্রশ্ন নয়। দিলীপ ঘোষ ভালমানুষ, ওঁর জুড়ি মেলা ভার, উনি কথা বললেই টিআরপি।

তাপস পাল যেদিন ঘরে ছেলে ঢুকিয়ে রেপ করার কথা বলেছিলেন, সেদিনও কিছু মানুষ হাততালি দিয়েছিল।
অনুব্রত মণ্ডলের গরম কথা শুনতে ও শোনাতে মিডিয়া দৌড়য়। এই ধরনের রাজনৈতিক সংস্কৃতির একটা বিজেপি ভারসন থাকবে না? তা কি হয়!
মানুষ নাই বা পেল সভ্য, শিক্ষিত, যুক্তিনিষ্ঠ রাজনৈতিক মুখ। তৃণমূলেও তো কত সচেতন, সংবেদনশীল, শিক্ষিত, ভদ্র মুখ পিছনের সারিতে পড়ে আছে। বিজেপিতে থাকলে থাক। দোষের কি? মোদি-অমিত আছেন, দলের ও সঙ্ঘের কর্মীরা আছেন, তাঁরা দলকে ঠিকই লক্ষ্যে এগিয়ে নিয়ে যাবেন। বর্তমান রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে অনুব্রতর ক্লোন বড় দরকার। সেই মানুষেরা হাততালি দেবে। যারা রেপের কথায় হাততালি দেয়, চড়াম চড়াম ঢাক বাজার কথায় হাততালি দেয়, যারা অ্যম্বুলেন্স ঘুরিয়ে দিলে হাততালি দেয়। তারা হাততালি দেবে। হাততালির শব্দ বারবার বলবে, এই রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে দিলীপ ঘোষের বিকল্প নেই।
উনি ভালোমানুষ, ওঁর জুড়ি মেলা ভার, উনি কথা বললেই টিআরপি।

Spread the love

Check Also

আইপিএল থেকে সরানো হল ভিভোকে, বিবৃতি দিয়ে জানাল বিসিসিআই

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ বা আইপিএলের বিজ্ঞাপন থেকে বাদ দেওয়া হল চিনের মোবাইল …

৪০ বছর পর পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হল লন্ডনের ঐতিহাসিক উইন্ডসোর দুর্গ

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো: ৪০ বছরের বেশি সময় পরে জনসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হবে ব্রিটেনের উইন্ডসোর …

করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল সিপিএম নেতা শ্যামল চক্রবর্তীর

চ্যানেল হিন্দুস্তান ব্যুরো : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে প্রাণ হারালেন আরও এক নেতা। এবার প্রয়াত হলেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!