Breaking News
Home / TRENDING / মহারাষ্ট্রে সরকার গড়ার শক্তি নেই, সোনিয়ার সঙ্গে বৈঠকের পর বুঝিয়ে দিলেন পাওয়ার

মহারাষ্ট্রে সরকার গড়ার শক্তি নেই, সোনিয়ার সঙ্গে বৈঠকের পর বুঝিয়ে দিলেন পাওয়ার

নীল রায়।

বিজেপিকে পিছনে ফেলে কোনওভাবেই মহারাষ্ট্রের সরকার গড়তে পারছে না কংগ্রেস ও এনসিপি (NCP)। সোমবার সন্ধ্যায় ১০ জনপথে সোনিয়া গান্ধীর (Sonia Gandhi) বাড়িতে বৈঠক করেন এনসিপি প্রধান শরদ পাওয়ার। কংগ্রেসের (Congress) তরফে বর্ষীয়ান নেতা এ কে অ্যান্টোনিও (A K Anthony) বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। মূলত মহারাষ্ট্রে (Maharashtra) সরকার গঠনের প্রক্রিয়া এবং আগামী দিনে কংগ্রেস-এনসিপির জোট ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনা করেন পাওয়ার – সোনিয়া।

বৈঠক শেষে শরদ পাওয়ার (Sharad Power) বলেন, “সোনিয়াজির সঙ্গে সরকার গঠন নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি। আমি সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে কথা বললাম। আগামী দিনেও বলব। আমরা দুই দলের ভবিষ্যৎ রোডম্যাপ নিয়ে আলোচনা করেছি। তবে, ঠিক সরকার গঠন নিয়ে কোনও আলোচনা হয়নি।” কংগ্রেস – এনসিপি কী মহারাষ্ট্রে সরকার গড়ার দাবি জানাবে? এমন প্রশ্নের জবাবে পাওয়ার বলেন, “আমাদের কাছে উপযুক্ত সংখ্যা নেই।”

অন্যদিকে, এদিনই দিল্লিতে বিজেপি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের (Amit Shah) সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীশ (Debendra Fadnabish)। বৈঠক শেষে ফড়নবীশ দাবি করেন মহারাষ্ট্রে সরকার গড়ছেন তিনিই। যদিও শিবসেনা (Shivsena) এখনই হাল ছাড়তে নারাজ। মুখ্যমন্ত্রীর দাবির সঙ্গে অর্ধেক মন্ত্রীসভায় চেয়ে রেখেছে উদ্ভব ঠাকরের (Uddhvab Thakrey) নেতৃত্বাধীন শিবসেনা। তবে কংগ্রেস বা এনসিপি কেউই শিবসেনা সঙ্গে জোটে গিয়ে নীতিগত আপস করবে না বলেই মনে করছে জাতীয় রাজনৈতিক হয়।

Spread the love

Check Also

সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করলে কাউকে ছাড়া হবে না, কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

ওয়েব ডেস্ক: সরকার সম্পত্তি নষ্ট করলে কাউকে ছাড়া হবে না, কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর। রাজ্যজুড়ে নাগরিকত্ব …

ট্রেন বাস পোড়ালে ক্ষতি মোদী মমতার না বরং দেশের: ত্বহা সিদ্দিকি

নিজস্ব সংবাদদাতা: প্রতিবাদ হোক, কিন্তু শান্তিপূর্ণ। এমন কিছু করবেন না যাতে দেশের ক্ষতি হয়, মানুষের …

“সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করুন !” মুখ্যমন্ত্রীকে পরামর্শ রাজ্যপালের

সূর্য সরকার। “মুখ্যমন্ত্রী সাংবিধানিক দায়িত্ব পালন করুন।” শনিবার টুইট করে এমনই পরামর্শ দিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *